hand painted saree design

Hand Painted Saree Design, হাতের তৈরি শারি ডিজাইন, নকশি কাঁথা

hand painted saree design

হাত শিল্পটি কার্যকর যা সর্বদা মোহিত করে তোলে, সূক্ষ্ম রেখাগুলি এবং তীক্ষ্ণ বৈশিষ্ট্যযুক্ত হাতে আঁকা নিখুঁত মূর্তি এবং চিত্রগুলিতে দেখা যায়। 

শাড়িগুলিতে সুন্দর রঙ এবং তীক্ষ্ণ বিবরণে হ্যান্ড পেইন্টিং উদাহরণস্বরূপ শিল্পশৈলীতে দক্ষতা এবং নির্ভুলতার প্রদর্শক প্রদর্শন। এমন ঐতিহ্যবাহী কারিগররা আছেন যাঁরা জাতিগত জাতগুলির উপর দক্ষতা প্রদর্শন করেছেন। 

মিরপুর বেনারসি 

মিরপুর ১০ ও ১১ নম্বরের বিশাল একটা অংশ জুড়ে অবস্থান বেনারসি পল্লীর 

বেনারসি শাড়ির মূল উৎপত্তিস্থল হিসেবে ভারতের বেনারস শহরের নাম শোনা যায়। কিন্তু ঠিক কবে থেকে বেনারশী শাড়ি তৈরি করে আসছেন তা জানা যায় নি। ১৯৪৭ সালে দেশ ভাগের পর ভারতের বেনারসের প্রায় ৩৭০টি মুসলমান তাঁতি পরিবার তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে চলে আসে। তারা বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় এরা ছড়িয়ে-ছিটিয়ে ব্যবসা শুরু করে। তবে বাংলাদেশ স্বাধীন হবার পরে স্থানীয়রা এ পেশায় ব্যাপকভাবে জড়িত হবার পরই বেনারসি শিল্পের অগ্রগতির সূচনা ঘটে। 

জামদানি শাড়ি

বলা হয় প্রাচীনকালের মসলিন কাপড়ের উত্তরাধিকারী হিসেবে জামদানি শাড়ি । যা বাংলাদেশের অনন্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য । কার্পাস তুলা দিয়ে প্রস্তুত একধরনের পরিধেয় বস্ত্র যা বুননকালে তৃতীয় একটি সুতা দিয়ে নকশা ফুটিয়ে তোলা হয় । ‘জামদানি’ কে স্রেফ কাপড়/শাড়ি বা পণ্য ভাবলে ভুল হবে। ‘জামদানি’ হচ্ছে বিশেষ ভূগোল ও পরিবেশে শিল্প চর্চার বিশেষ একটি ধরণ যার মাধ্যমে একজন তাঁতি সুতা , রং , মাকু এবং তাঁত এর মাধ্যমে নৈপুণ্য শিল্প তৈরী করে । 

ঐতিহ্যবাহী নকশা ও বুননের কারণে ২০১৬ সালে জামদানিকে বাংলাদেশের ভৌগোলিক নির্দেশক (জিআই) পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি দেয় ইউনেস্কো।

টাঙ্গাইলের তাঁতের শাড়ি (Hand painted saree design)

তাঁতশিল্প বাংলাদেশের অন্যতম পুরোনো কুটিরশিল্প। টাঙ্গাইলের তাঁতের শাড়ি তারই ঐতিহ্য বহন করে । জেলার নামেই এর নামকরণ করা হয়েছে । টাঙ্গাইলের একটি প্রবাদ বেশ পরিচিত। 

‘নদী চর খাল বিল গজারীর বন

টাঙ্গাইল শাড়ি তার গরবের ধন।’ 

বাজিতপুর ও করটিয়া-য় সপ্তাহে দুই দিন শাড়ির হাট বসে । এখানে টি পিট তাঁত,চিত্তরঞ্জন তাঁত এবং পাওয়ার তাঁতে শাড়ি বুনে থাকেন । 

শীতল পাটি 

টাঙ্গাইল জেলা দেলদুয়ার উপজেলার হিঙ্গানগর, গজিয়াবাড়ি, আটিয়া ও নাল্লাপাড়াসহ বেশ কয়েকটি গ্রাম শীতল পাটি জন্য সমৃদ্ধ । সপ্তাহে দুইদিন শুক্রবার ও শনিবার শীতল পাটির হাট বসে হিঙ্গানগর গ্রামে

লুঙ্গির  এবং গামছা 

টাঙ্গাইল জেলা কালিহাতীর বল্লা এবং নরসিংদী জেলার ‘প্রাচ্যের ম্যানচেষ্টার’ বলে খ্যাত শেখেরচর (বাবুরহাট) লুঙ্গির তৈরির জন্য বিখ্যাত । বাংলাদেশের তাঁত বস্ত্রের চাহিদার প্রায় সিংহভাগ পূরণ করছে এ জেলার তাঁত শিল্প।

Hand painted saree design

ফরিদপুরের নকশি কাঁথা

নকশি কাঁথা হলো সাধারণ কাঁথার উপর নানা ধরণের নকশা করে বানানো বিশেষ প্রকারের কাঁথা। নকশি কাঁথা বাংলাদেশেরলোকশিল্পের একটা অংশ। ফরিদপুরের কাঁথায় লোকগল্প দেখা যায় । তেমনই একটি কাথায় কৃষ্ণকাহিনীর একটি দৃশ্য ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। তাতে গাছের উপরে বসা কয়েকজন নগ্ন মহিলার একটি দৃশ্যের নীচে শিরোনাম লিখিত হয়েছে: বস্ত্রহরণ

বাঁশ-বেত শিল্প

কিশোরগঞ্জের ভৈরবের ভৈরব উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নের মানিকদী, পূবেরকান্দা, চাতালচরসহ বিভিন্ন গ্রামে সুপ্রাচীনকাল ঐতিহ্যবাহী বাঁশ-বেত শিল্পের প্রসার ঘটে। তৈরী হয় শীতলপাটি, চাটাই, ডুল, জাবার, হাতপাখা, ডুলা, খলই, ওড়া, পাইছা, ঝুঁড়ি, চালনা, কুলা, মুড়া, চাই ইত্যাদি নানা বাহারি জিনিস। 

 

Top 10 brazil online shopping websites 2021

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *