যেভাবে দীর্ঘদিন ভালো থাকবে প্রিয় কাপড়টি Fabric Care

/
/
/
130 Views

Fabric Care, কাপড় আমাদের পাঁচটি মৌলিক চাহিদার মধ্যে অন্যতম একটি। যা আমাদের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস। তারই প্রেক্ষাপটে আমরা কম বেশি সবাই কাপড় কেনাকাটা করে থাকি। খুব কম লোকই আছে যাদের নিত্য নতুন জামাকাপড় কেনা পছন্দ না। 

আমরা শখ করে অনেক কাপড় কিনে থাকি, কারন আমাদের সখের জিনিস পড়তে বা ব্যাবহার করতে সবারই ভালো লাগে। 

কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না কিভাবে কাপড়ের যত্ন নিতে হয় বা ধুতে হয়, যারফলে আমরা আমাদের প্রিয় বা শখের কাপড়টি বেশিদিন পরতে পারি না।

তাই এখন আমরা এ বিষয় নিয়েই জানব কিভাবে প্রিয় কাপড়টি দীর্ঘদিন ভালো রাখতে হয়।

 

মানসম্মত কাপড় কেনাঃ  Fabric Care

আপনাকে বেশী দামী অথবা ব্র্যান্ডের জামা কাপড় কিনতে হবে না। তারথেকে আপনি একটু মানসম্মত জামা কাপড় কিনাটাই ভালো। ভালো মানের ওয়ারড্রোব ব্যবহার করতে পারেন এতে আপনার কাপড় দীর্ঘদিন ভালো থাকবে।

বাচ্চাদের কাপড় বেশী দিন পরানো যায় না। কারণ, বাচ্চারা বেড়ে ওঠে তাড়াতাড়ি। তাই বাচ্চাদের জন্য মোটামুটি ভাবে কাপড় কিনতে পারেন। কিন্তু বড়দের কাপ কেনার ক্ষেত্রে মানসম্মত কাপড় কেনাই ভালো।

বেশি দামের কাপড় কেনা মানেই মানসম্মত কাপড় নয়। তাই কাপর কেনার সময় মান দেখে কিনবেন।

যেমন কাপড়ের সেলাইয়ের ধরণ, বোতাম ফিটিং করে লাগানো কিনা, কাপড় অতিরিক্ত পাতলা কিনা সেগুলো খেয়াল করে কাপড় কিনুন। 

 

কাপড় ধোয়ার ক্ষেত্রে সতর্কতাঃ Fabric Care

 কাপড়কে বেশী দিন ভালো রাখার জন্য কাপড় পরিষ্কার রাখা অবশ্যই জরুরি। কাপড়কে যত্নের সাথে পরিষ্কার করতে হবে। অনেক সময় শার্ট কিনলে শার্টের কলারের নিচে একটি টোকেন থাকে, যেটা কাপড় ধোয়ার নির্দেশিকা। সেই অনুযায়ী কাপড়কে ধুতে হবে।

আর যদি নির্দেশিকা না থাকে বা মেয়েদের কাপড়ের ক্ষেত্রে-

হালকা গরম পানিতে সুতি কাপড় ডিটারজেন্ট পাউডার দিয়ে ২৫-৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর ধুয়ে কাপড় শুকাতে দিন। শুকাতে দেয়ার ক্ষত্রে মনে রাখবেন, সব সময় কাপড় উল্টোদিক করে শুকাতে দিবেন। 

সিল্কের কাপড়- ঠান্ডা পানিতে হালকা ডিটারজেন্ট পাউডার দিয়ে ১০-১৫ ভিজিয়ে রেখে আলতো করে কেঁচে হালকা রোদে অথবা ছায়ায় শুকাতে দিবেন। এতে কাপড় ভালো থাকবে। 

অতিরিক্ত ময়লা কাপড়ের সঙ্গে অন্য কাপড় মিশিয়ে ভেজাবেন না। এতে অন্য কাপড়ে দাগ লাগার আশঙ্কা থাকে। এবং গারো রংয়ের কাপড়ের সাথে সাদা কাপড় মেশাবেন না, এতে সাদা কাপড়ে রং লেগে যেতে পারে বা অন্য কাপড়েও। 

 

কাপড় আয়রনের ক্ষত্রে সতর্কতাঃ Fabric Care

কাপড় কিভাবে আয়রন করবেন তা নির্ভর করে কাপড়ের ধরণের উপর। একেক ধরণের কাপড় একেক রকম ভাবে আয়রন করতে হয়।

তাই আয়রন করার সঠিক পদ্ধতিটি জানা দরকার। সঠিক নিয়মে আয়রন না করলে কাপড় পুড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে অথবা কাপড়ের রঙ জ্বলে যেতে পারে। কাপড় আয়রন করার সময় উল্টোদিক করে ইস্ত্রি করবেন। এতে কাপড় (Fabric Care) ভালো থাকবে। 

আইয়রনের গায়ে লেখা থাকে কী ধরনের কাপড় কত তাপমাত্রায় আয়রন করতে হয়। সেটা ভালো করে খেয়াল করবেন তারপর আপনার কাপড় অনুযায়ী সেই তাপমাত্রায় আয়রন করবেন।

 

কাপড়কে উল্টিয়ে পালটিয়ে পরিষ্কার করুনঃ 

মাঝে মাঝে কাপড়কে উল্ট করে পরিষ্কার করুন। তাহলে কাপড় ঝলমলে আর পরিপাটি থাকে। রোদে শুকানোর সময়ও সবসময় কাপড়ের উল্টোদিক করে দিন। এতে কাপড়ের রঙ ঠিক থাকে। 

 

শাড়ি পড়ার যত ভুল করি আমরা Saree Fashion

কাপড় সংরক্ষণ করাঃ

ময়লা কাপড় অনেকদিন পর্যন্ত জমিয়ে না রাখাই ভালো। পরিষ্কার করে সেলফে, ড্রয়ারে অথবা আলমারিতে সংরক্ষণ করুন। 

জ্যাকেটের অথবা প্যান্টের জিপারগুলোর ক্ষেত্রে কয়েকদিন পর পর মোম দিয়ে ঘষতে পারেন অথবা নারিকেল তেল দিয়ে রাখতে পারেন। এতে জিপার ভালো থাকবে।  নাহলে জিপারে জ্যাম হয়ে যায়। কয়েকদিন পর পর আলমারির কাপড় বের করে ১-২ ঘন্টা রোদে দিয়ে আবার আলমারিতে সংরক্ষণ করুন। এতে কাপড় ভালো থাকবে।

 

শিতে কাপড় পরিষ্কারঃ

শীতের কাপড় ধোয়ার জন্য কম ক্ষারযুক্ত সাবান, ডিটারজেন্ট পাউডার ও শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন। উলের কাপড় ধোয়ার সময় কখনই কাপড় ব্রাশ দিয়ে ঘষবেন না। এতে কাপড় নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

উলের কাপড় রাখার ক্ষত্রে এমন স্থান বেছে নিন যেখানে বাতাস কম ঢোকে এবং টিস্যু দিয়ে মুড়িয়ে রাখতে পারেন।

উপরের এই পদ্ধতিগুলোর মাধ্যমে আপনি আপনার প্রিয় কাপড়টি এমনকি যেকোন কাপড়ই দির্ঘদিন ভালো রাখতে পারবেন। 

Zeros Fashion

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This div height required for enabling the sticky sidebar
Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views : Ad Clicks :Ad Views :