AboutSell

অনলাইনে শাড়ি কেনা কি আপনার জন্য ঠিক হবে?

অনলাইনে শাড়ি

অনলাইনে শাড়ি

বাংলাদেশে এখন প্রতি বছর ১০০০ কোটি টাকার পন্য অনলাইনে পণ্য বিক্রি হয়। আর প্রতিদিন অনলাইনে ডেলিভারি দেয়া হয় ২০,০০০ অর্ডার৷ দেশে ওয়েবভিত্তিক অনলাইন শপ আছে ১,০০০। ফেসবুক ভিত্তিক আছে ১০,০০০ এরও বেশি৷

বাংলাদেশে যে কোন উৎসবে বাঙালি নারীর প্রথম পছন্দ শাড়ি। কিন্তু নারীরা নানা কাজে ব্যস্ত থাকায় মার্কেট এ যাওয়া হয়ে উঠে না।তাই অনেকে অনলাইনে শাড়ি কিনেন। কিন্তু অনলাইনে শাড়ি কেনার সময় নানা ভাবনা মাথার মধ্যে আসে- কিনব নাকি থাক?

কিনেই ফেলি বরং! দেখা যাক না, একবার কিনে পরের বার না হয় দোকানে গিয়েই… এই রকম নানা ভাবনা।বিশেষ করে যারা দোকানে গিয়ে থেবড়ে বসে শাড়ি পছন্দ করাতে অভ্যস্ত, তাঁরা তো আকছারই এসব ভেবে থাকেন। তবে কী জানেন তো, যস্মিন দেশে যদাচার! এখন হচ্ছে অনলাইনে কেনাকাটার যুগ। মানুষের হাতে সময় কম।

সুতরাং, দোকানে গিয়ে এক ঘণ্টা ধরে শাড়ি বাছার ফুরসত নেই। তা ছাড়া অনলাইন শাড়ির রেঞ্জ বলুন, ডিসকাউন্ট বলুন, সবই অনেকটাই বেশি। কিন্তু কোন সাইট থেকে শাড়ি কিনবেন আর কেনার আগে কী-কী কথা মাথায় রাখবেন, সেটাও জানা জরুরি।



অনলাইনে শাড়ি কেনার ক্ষেত্রে কিছু জিনিস মাথায় রাখবেন। তো চলুন সেগুলি জেনে নেই-



১) যে শাড়ির ছবি দেখে আপনি পছন্দ করছেন, সেটা কিনার আগে দেখে নিন ছবির নীচের লেখাটি।অনেক সময় ছবির নীচে ছোট করে লেখা থাকে যে ছবিটি শুধু বোঝাবার জন্য ব্যবহার করা হয়েছে বা মডেল যে শাড়িটি পরেছেন এই শাড়ির রঙ  তার চেয়ে আলাদাও হতে পারে। এসব ক্ষেত্রে ওই শাড়িটি না কেনাই ভাল।

২) যে সাইট থেকে শাড়ি কিনবেন সেখানে যেন COD বা ক্যাশ অন ডেলিভারির অপশন থাকে। কেননা, আপনি যদি আগে থেকে অনলাইনে পেমেন্ট করে দেন এবং পরে যদি আপনার শাড়ি পছন্দ না হয় এবং সে শাড়িটি যদি ফেরত দিতে চান, তা হলে মুশকিল হতে পারে।

৩)যে সাইট থেকে শাড়িটি কিনছেন,গ্রাহক পরিষেবা, বিভিন্ন জায়গায় তার রেটিং এবং অন্যান্য সার্ভিস কেমন, সেটা একবার দেখে নেবেন। তারা কোন কুরিয়ার এর মাধ্যমে শাড়িটি আপনাকে ডেলিভারি দিচ্ছে, সে সম্পর্কেও আপনার খোঁজখবর নিয়ে রাখা ভাল। অনেক কুরিয়ার সংস্থা আছে ট্র্যাকিং দেয় না, সেটাও একটা সমস্যা হয়ে দাঁড়াতে পারে আপনার জন্য।

৪) যে সাইট থেকে শাড়ি কিনছেন (Online Saree Shopping) দেখে নিন, সেই সংস্থার রিটার্ন পলিসি ঠিক কীরকম। অনেক কোম্পানিই প্যাকেট ছেঁড়া হলে শাড়ি ফেরত নেয় না। এ ছাড়াও এদের আরও অনেক রকম শর্ত থাকে। সেগুলো একটু দেখে নিন।

অনেকে প্রোডাক্ট ফেরত নিয়ে নেয়, কিন্তু পয়সা ফেরত দেয় নিজেদের সাইটের ক্রেডিটে! মানে, আপনি ধরুন ১,৫০০ টাকা দিয়ে একটা লিনেন কিনেছিলেন, সেটা পছন্দ না হওয়ায় ফেরত দিতে চাইছেন। এবার সেই সাইট ফেরত নেবে, কিন্তু ওই টাকাটা জমা থাকবে আপনার সাইট প্রোফাইলে।তার মানে, সরাসরি টাকা ফেরত পেলেন না।এবং ঐ টাকা দিয়ে ওই সাইট থেকেই আবার আপনাকে জিনিস কিনতে হবে।


অনলাইন জগতে শাড়ি কিনার অনেক সাইট আছে।কিন্তু সব জায়গা থেকে শাড়ি কিনা ঠিক না,এতে ঠকার আশঙ্কা থাকতে পারে। আমি কিছু সাইট এর নাম বলছি, যেখান থেকে কিনলে আশা করা যায় ঠকবেন না। সাইট গুলি হচ্ছে-



অ্যামাজন (Amazon)



এই সাইট নিয়ে আলাদা করে বলার কিছু নেই। গ্রাহক পরিষেবা থেকে শুরু করে ঠিক সময়ে ডেলিভারি দেওয়া ,অনেক দিন ধরে দশে দশ পাচ্ছে অ্যামাজন। শিফন ও সিল্কের শাড়ি এখানে সবচেয়ে ভাল। বেশ ভাল চাহিদা আছে হাফ অ্যান্ড হাফ শাড়িরও। শাড়ির দামের রেঞ্জ মোটামুটি ৫০০-৭০০ র মধ্যে থেকে শুরু হয়েছে এখানে। তবে কিনার আগে দেখে নিবেন  Sold By বলে কার নাম দেওয়া আছে।যদি থার্ড পার্টি সেলার হয়, সেই ক্ষেত্রে সেলারের সম্পর্কেএকটু খোঁজখবর নিয়ে তবেই কিনা ভালো।



উৎসব ফ্যাশন (Utsav Fashion)


মাত্র কয়েকদিন হল যাত্রা শুরু করেছে এই সাইট। তবে এর মধ্যেই অনেকের পছন্দের তালিকায় উঠে এসেছে এই নাম। বেনারসি শাড়ি যাঁরা পছন্দ করেন, তাঁদের জন্য আদর্শ এই সাইট।সো এই সাইট থেকে খুব সুন্দর সুন্দর শাড়ি কিনতে পারেন।

 


পিচমোড (Peachmode)

বেশ কয়েক বছর হল জনপ্রিয় হয়েছে এই সাইট। কারণ, এদের শাড়ির রেঞ্জ বেশ এক্সক্লুসিভ। বিশেষ করে এমব্রয়ডারি করা ডিজাইনার শাড়ি বেশ বাজেটের মধ্যে পাওয়া যায় এখানে। সো এই সাইট থেকে কিনতে পারেন।




কল্কি ফ্যাশন (Kalki Fashion)



অন্যান্য সাইটের চেয়ে এই সাইটে শাড়ির দাম সামান্য একটু বেশি। তবে শাড়ির কোয়ালিটি নিয়ে কোনও কথা হবে না। এখানে সব রকমের শাড়ি পাওয়া গেলেও খাঁটি লিনেন শাড়ির চাহিদা বেশি। ভাল চাহিদা আছে রাফল শাড়িরও।সো এই সাইট থেকে কিনতে পারেন।

 

শাড়ি ডট কম (Saree.com)


শাড়ি ডট কম এর আছে একটি বিশেষ সুবিধে। আপনি এই সাইটের ফ্যাশন এক্সপার্টের সঙ্গে ভিডিও চ্যাটের মাধ্যমে শাড়ি কেনার সময় কথা বলতে পারবেন। আর এই সাইটের নাম দেখেই বোঝা যাচ্ছে এরা শাড়ি ছাড়া আর কোনকিছু বিক্রি করে না। তবে এই সাইটে (Online Saree) শাড়ির দাম একটু বেশি। সুতরাং, আপনার বাজেট কম হলে,এই সাইটে  খুব একটা না আসাই ভালো।



আজিও ডট কম (Ajio)


যারা ভাল শাড়ি কিনতে গিয়ে দাম নিয়ে কোনও দরাদরি করেন না তাঁদের জন্য আজিও ডট কম ভালো । আর যারা হ্যান্ড প্রিন্টের শাড়ি বা একদম খাঁটি হ্যান্ডলুমের শাড়ি পছন্দ করেন তারাও এই সাইট পছন্দ করবেন। ডাবু হ্যান্ড ব্লক আর সুতির বেনারসির চাহিদা এই সাইটে সবচেয়ে বেশি।



সো উপরের প্রেক্ষাপটে বলা যায় অনলাইনে শাড়ি কেনা সবার জন্যই ঠিক।

Exit mobile version